বাংলাদেশ রেলওয়ে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৪ ডিসেম্বর ২০১৬

ই-টিকিটিং সিস্টেম

গত ২৯/০৫/২০১২, তারিখে চালুকৃত বাংলাদেশ রেলওয়ের ই-টিকেটিং সিস্টেমে টিকেট ক্রয়ের নিয়মাবলী/পদ্ধতিঃ

 

Registration প্রক্রিয়াঃ (শুধুমাত্র একবার করতে হবে)।

 

১।

প্রথমে www.railway.gov.bd ওয়েব সাইটে প্রবেশ করতে হবে।

২।

ওয়েবসাইটে ঢুকে “ডান পার্শ্বের Internal E-services/আভ্যন্তরীণ ই-সেবা হতে Railway E-Ticketing service/রেলওয়ে ই-টিকিট” এর লিংক এ ক্লিক করতে হবে।

৩।

Bangladesh Railway এবং CNS Ltd. লেখা ও লোগো সম্বলিত একটি নতুন ওয়েব সাইট খুলে যাবে।

৪।

ওয়েব সাইটটির নীচের দিকে “Sign up” বাটনে ক্লিক করতে হবে।

৫।

Create an Account” নামের নতুন একটি Page আসবে। এখানে “Personal Information” ও Extra Information” এর সংশ্লিষ্ট ঘরগুলো প্রয়োজনীয় তথ্যাদি দিয়ে পূরণ করতঃ Security code ঘরের পাশে প্রদর্শিত “Security Code” দিয়ে পূরণ করে Register বাটনে ক্লিক করতে হবে।

 

৬।

সকল তথ্যাদি সঠিক থাকলে “Registration Successful” নামে নতুন একটি Page আসবে।

৭।

ই-টিকেটিং সিস্টেম থেকে তাৎক্ষনিকভাবে আপনার প্রদত্ত ই-মেইল ঠিকানা Bangladesh Railway এর  থেকে একটি ই-মেইল পাঠানো হবে।

৮।

আপনার ই-মেইল এর মেসেজ বক্সে Bangladesh Railway প্রদত্ত ই-মেইলটি খুলতে হবে। মেসেজের ভিতর রক্ষিত “Click” লিংকটিতে ক্লিক করতে হবে। এ প্রক্রিয়ার পর যাত্রীর Registration প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ হবে।

 

ক্রয় প্রক্রিয়াঃ

১।

প্রথমে www.railway.gov.bd ওয়েব সাইটে প্রবেশ করতে হবে।

২।

ওয়েবসাইটে ঢুকে “ডান পার্শ্বের central E-service হতে Railway E-Ticketing service” এর লিংক এ ক্লিক করতে হবে।

৩।

Bangladesh Railway এবং CNS Ltd. লেখা ও লোগো সম্বলিত একটি নতুন ওয়েব সাইট খুলে যাবে।

৪।

“Log in” এর প্যানেল ই-মেইল ঠিকানা, পাসওয়ার্ড এবং সিকিউরিটি কোড পূরণ করতঃ “Log in” বাটনে ক্লিক করতে হবে।

৫।

এরপর যে Pageটি আসবে তাতে “Purchase ticket”  বাটনে ক্লিক করতে হবে।

৬।

এখানে যে Pageটি আসবে সে Page এ আপনার চাহিত ভ্রমণ তারিখ, প্রারম্ভিক স্টেশন, গন্তব্য স্টেশন, ট্রেনের নাম, শ্রেনী, টিকেট সংখ্যা যেভাবে রয়েছে তা পূরণ করতে হবে। এর পরের পেইজে “Registration Seat Available”  দ্বারা চাহিত টিকেট এবং এর মূল্যমান জানিয়ে দেয়া হবে। টিকেট থাকলে “Purchase ticket”  বাটন ক্লিক করতে হবে।

৭।

 ক্রেডিট কার্ড, ক্যাশ কার্ড কিংবা ব্রাক ব্যাংকের একাউন্ট মারফত যাত্রির জমাকজৃত টাকা থেকে টিকেট মূল্য কেটে নেয়া হবে এবং যাত্রীর ই-মেইলে ই-টিকেটটি পাটিয়ে টিকেট নিশ্চিত করা হয়ে থাকে।

 

৮।

ই-মেইল মেসেজ বক্স থেকে প্রেরিত টিকেটটির প্রিন্ট নিয়ে ফটো আইডিসহ ই-টিকেট প্রদত্ত “Ticket Print Information” প্রদান করে সংশ্লিষ্ট সোর্স ষ্টেশন থেকে যাত্রার পূর্বে ছাপানো টিকেট সংগ্রহ করতে হবে।


Share with :
Facebook Facebook